মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সিটিজেন চার্টার

সেবা/অধিকারের বিষয়

সেবা প্রদানের পদ্ধতি ও শর্তাবলী

সময়সীমা

প্রতিকার পদ্ধতি

দেশের আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় আইন প্রয়োগকারী সংস্থাসমূহকে সাহায্য করা।

আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ বাহিনীকে সকল কাজে সহায়তা করা।

জাতীয় জরুরী প্রয়োজনে সরকার নির্ধারিত সময়

সরকারী নির্দেশে আইন শৃঙ্খলা রক্ষা এবং উন্নয়নমূলক কাজে যে দায়িত্ব দিয়েছে তাহা পালনের মাধ্যমে।

দেশের স্বাধীনতা রক্ষায় প্রতিরক্ষা বাহিনীকে সহায়তা করা।

যুদ্ধকালীন সময়ে সেনাবাহিনীর অপারেশনাল কাজে তাহাদের অধিনে কাজ করা।

যুদ্ধকালীন সময়ে

সীমমত্ম এলাকায় চোরাচালানী দমনে বিজিবিকে সহায়তা করা।

গুরুত্বপূর্ণ স্থান, যেমন- পুল, সেতু, টেলিফোনের তার, রেল লাইন, গাছপালা ইত্যাদি দেখাশুনা করা।

প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময় সাধারণ মানুষকে সহায়তা করা।

১) বিভিন্ন দুর্যোগের তথ্যাবলীর কারণ জেনে লিপিবদ্ধ করা।

২) জলোচ্ছ্বাসে পানি কত দ্রুত বেড়েছে, কতদিন বা কতক্ষণ স্থায়ী থেকেছে সে সম্পর্কে জেনে পরিকল্পনার অংশ হিসেবে লিপিবদ্ধ করা।

৩) বন্যার পানি বা ঘূর্ণিঝড় কোন দিক থেকে কোন দিকে প্রবাহিত হয়েছে তা লিখে রাখতে হবে।

সরকার ঘোষিত বা চলমান দুর্যোগ চলাকালীন সময়।

একটি অবকাঠামো মানচিত্রে সকল অপসারণ ক্ষেত্র, যেমন- আশ্রয় কেন্দ্র, পাকা দালান, উঁচু ভূমি এবং রাসত্মাঘাট, বাসস্ট্যান্ড, জেটি, নতুন সেতু, ও বাঁধ, গুদাম, হাসপাতাল ইত্যাদি চিহ্নিত করতে হবে এবং আটকে পড়া লোকদের উদ্ধারের ব্যবস্থা করে ব্যবস্থা নেওয়া

সন্ধান ও উদ্ধার কাজের জন্য নৌকা, ভেলা, লাইট, জ্যাকেট ইত্যাদি প্রাপ্তির স্থান থেকে সংগ্রহ করে ব্যবস্থা নেওয়া।

সরকারী নির্দেশে জাতীয় উন্নয়ন ও আর্থ-সামাজিক কাজে সহায়তা করা।

সরকারী যে কোন জরুরী অবস্থায় প্লাটুনের আনসারদে সংঘটিত রাখা এবং নেতৃত্ব দান করা। উন্নয়নমূখী কাজে উদ্বুদ্ধ করা এবং কুটির শিল্প স্থাপন, শাক-সবজি ও ফলমূলের আবাদ, হাঁস-মুরগী, কবুতর ইত্যাদি পালনের জন্য উদ্বুদ্ধ করা।

সারা বছর এই কাজ সচল রাখা এবং দেশের উন্নয়নে অবদান রাখা।

যে কোন ১টি পেশায় পেশা ভিত্তিক প্রশিক্ষণ গহণ করা।

সকলকে উন্নয়নমুখী কাজে উদ্বুদ্ধ করা এবং পরামর্শ ও জ্ঞান দান করা স্থানীয় প্রশাসনের সাথে সাথে কাজ করা।

দেশের সিভিল প্রশাসনকে সহায়তা করা।

স্থানীয় সরকারের নির্দেশক্রমে সমাজ বিরোধী কার্যকলাপ রোধ করা।

সরকারী নির্ধারিত সময় ও স্থানীয় প্রশাসনের সময় নির্দেশীত সময়ে।

চুরি, ডাকাতি ও অসামাজিক কার্যকলাপ বন্ধে পুলিশকে সহায়তা করা।

গ্রামের দুশ্চরিত্রের লোকদেরকে সংশোধনের ব্যবস্থা করা। না হলে পুলিশে সোপর্দ করা।

সরকারের গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা রক্ষণাবেক্ষণ করা।


Share with :

Facebook Twitter